বুধবার, ১৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:০০ অপরাহ্ন




ব্ল্যাক না গ্রিন টি, কোন চা বেশি উপকারী?

খবরপত্র ডেস্ক:
  • আপডেট সময় বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০




গ্রিন টি এবং ব্ল্যাক টি উভয়ই স্বাস্থ্যকর পানীয়। তবে আপনি কি কখনও ভেবে দেখেছেন, কোনটি স্বাস্থ্যকর? আমাদের স্ট্রেস, নিদ্রাহীনতা, উদ্বিগ্নতা কাটাতে সবার প্রথমে যে জিনিসটির নাম মনে আসে, তা হলো এক কাপ চা। এটি জাদুকরী উপায়ে আমাদের ক্লান্তি বা আলস্য দূর করে শক্তি বাড়ায়। বাড়িতে সাধারণত যে ধরনের চা তৈরি হয় তার বাইরে জনপ্রিয় দু’টি চা হলো গ্রিন টি ও ব্ল্যাক টি। দু’টি চা ক্যামেলিয়া সিনেনসিস নামে একটি গাছের পাতা থেকে আসে। গাছের পাতা এবং ফুল গ্রিন এবং ব্ল্যাক টি তৈরি করতে ব্যবহৃত হয়। বিস্তারিত প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।
গ্রিন টি কিভাবে তৈরি হয়? গ্রিন টি তৈরির জন্য পাতা সংগ্রহ করে শুকিয়ে নেয়া হয়। এরপর একটি প্যানে ভেজে গরম করা হয় বা স্টিম করে রাখা হয়। এটি পাতাগুলি অক্সিডাইজ হতে বাধা দেয়, যা চায়ের স্বাদ এবং রঙ বজায় রাখে।
ব্ল্যাক টি কিভাবে তৈরি হয়? ব্ল্যাক টি তৈরির জন্য পাতাগুলো ছেঁটে ফেলে শুকানো হয় এবং তারপর গুঁড়া করা হয়। হাইড্রেট হওয়ার আগেই জারিত করা হয়। তারপরে পাতায় থাকা এনজাইমগুলো জারিত হয় এবং পাতাগুলো গাঢ় বাদামী বর্ণের হয়। এগুলো আর বেশি সুগন্ধযুক্ত হয়। গ্রিন টি এর পাতাগুলো সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক, এদিকে ব্ল্যাক টি এর পাতাগুলো উত্তেজক এবং জারণযুক্ত।
গ্রিন টি এর উপকারিতা: গ্রিন টি ইজিসিজি সমৃদ্ধ, একটি অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যা কার্ডিওভাসকুলার রোগের সাথে লড়াই করে। গ্রিন টি ডিটক্সকেও সহায়তা করে এবং ত্বককে উজ্জ্বল করে। এটি আপনার বিপাক বৃদ্ধি করে এবং আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। অতিরিক্তভাবে, এটি ব্ল্যাক টি এর তুলনায় কম অ্যাসিডিক।
ব্ল্যাক টি এর উপকারিতা: ব্ল্যাক টিতে এল থানাইন নামক অ্যামাইনো অ্যাসিড রয়েছে, যা আপনাকে কাজে মনোনিবেশ করতে সাহায্য করে। পরিমিত পান করলে এটি শরীরে স্ট্রেস হরমোন হ্রাস করে। ব্ল্যাক টিতে থাফ্লাভিন রয়েছে যা হৃৎপি- এবং রক্তনালী রক্ষার কাজ করে, রক্তে শর্করার এবং কোলেস্টেরলের মাত্রাকে নিয়ন্ত্রণ করে।
গ্রিন টি এবং ব্ল্যাক টিতে থাকা ক্যাফেইন সামগ্রী: গ্রিন টিতে ব্ল্যাক টিয়ের চেয়ে কম ক্যাফেইন রয়েছে। ক্যাফেইনের উপাদানগুলো উদ্ভিদ, পদ্ধতি এবং প্রস্তুত করার উপর নির্ভর করে। এক কাপ কফির তুলনায় এক কাপ গ্রিন টিতে এক চতুর্থাংশ পরিমাণ ক্যাফেইন থাকে, আর এক কাপ ব্ল্যাক টিতে থাকে এক তৃতীয়াংশ ক্যাফেইন। পলিফেনল ছাড়া এই দুই চায়ের উপকারিতা প্রায় একই। যারা ক্যাফেইন বাড়াতে চাচ্ছেন তাদের জন্য ব্ল্যাক টি ভালো। আপনি যদি ক্যাফেইন গ্রহণের ক্ষেত্রে সংযমী হতে চান হন তবে গ্রিন টি বেছে নেয়া উচিত। কারণ এতে ব্ল্যাক টিয়ের তুলনায় কম ক্যাফেইন রয়েছে।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com