শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন




দেশে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হলেও সে হারে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে না

খবরপত্র ডেস্ক:
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০




ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড রিসোর্চ ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভের (এমআরডিআই) এক জরিপ প্রতিবেদনের তথ্য বলছে, বেকারত্ব, দুর্নীতি ও আইন-শৃঙ্খলার এসব চিত্রই এখন দেশের তরুণদের উদ্বেগের সবচেয়ে বড় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হলেও সে হারে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে না। নিশ্চিত করা যাচ্ছে না জননিরাপত্তাও। সরকারি-বেসরকারি উভয় খাতেই অনিয়ম-দুর্নীতির লাগাম টানা সম্ভব হচ্ছে না।
সামাজিক ক্ষেত্রে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির বাইরেও অন্য যেসব বিষয় তরুণদের উদ্বেগের কারণ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে, সেগুলোর মধ্যে রয়েছে নিম্নমানের স্বাস্থ্যসেবা, খারাপ সড়ক ও যানবাহন এবং শিক্ষাব্যবস্থার দুর্বলতা। এর মধ্যে ২৯ দশমিক ৯ শতাংশ নিম্নমানের স্বাস্থ্যসেবা, ২২ দশমিক ৯ শতাংশ খারাপ সড়ক ও যানবাহন ও ২২ দশমিক ৯ শতাংশ শিক্ষাব্যবস্থার দুর্বলতাকে তাদের সবচেয়ে উদ্বেগের উৎস হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। তরুণদের কাছে জাতীয় ক্ষেত্রে উদ্বেগের কারণ হিসেবে দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের পরের অবস্থানেই রয়েছে বেকারত্ব। ২৮ দশমিক ৩ শতাংশ তরুণ বেকারত্ব, ৯ দশমিক ২ শতাংশ রাজনীতি, ৭ দশমিক ৪ শতাংশ মূল্যবৃদ্ধি এবং ৪ দশমিক ১ শতাংশ তরুণ পরিবেশ ও জলবায়ুকে জাতীয় জীবনে নিজেদের সবচেয়ে বড় উদ্বেগ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। গবেষক দলের নেতৃত্ব দেন এমআরডিআইয়ের প্রোগ্রাম অ্যান্ড কমিউনিকেশনস প্রধান মিরাজ আহমেদ চৌধুরী। সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ গবেষণা ফলাফলে একটি ভিন্ন মাত্রা রয়েছে। সেটি হচ্ছে তরুণরা তাদের ব্যক্তিগত, সামাজিক ও জাতীয় জীবনের সমস্যা আলাদা করতে পেরেছে। তারা বলছে, তাদের ব্যক্তিগত জীবনে সবচেয়ে বড় সমস্যা বেকারত্ব। আবার সামাজিক জীবনে বেকারত্বের সমস্যা থাকলেও তাদের মতে সমাজে বড় উদ্বেগের বিষয় আইন-শৃঙ্খলা। আর জাতীয় জীবনে তরুণদের সবচেয়ে বড় উদ্বেগের বিষয় হলো অনিয়ম-দুর্নীতি। তরুণদের মতে, তথ্যের অবাধ সরবরাহ থাকলে অনিয়ম-দুর্নীতি কমে আসবে। এমনকি এর ফলে চাকরির প্রাপ্যতাও সহজ হয়।
সম্প্রতি দেশের আট বিভাগের ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী ৭০৬ তরুণের ওপর চালানো এক জরিপের ভিত্তিতে গবেষণাটি চালায় এমআরডিআই। তাদের মধ্যে পুরুষ ও নারী যথাক্রমে ৩৪৯ ও ৩৫৭ জন। অন্যদিকে শহর ও গ্রামাঞ্চলের বাসিন্দা যথাক্রমে ৪৮৯ ও ২১৭ জন। জরিপে পাওয়া ফলাফল প্রকাশ হয়েছে ‘ইনফরমেশন টু পাওয়ার ইয়ুথ: সার্ভে রিপোর্ট ২০২০’ শীর্ষক প্রতিবেদনে। এতে সহায়তা করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন ও ইউকেএআইডি। জরিপে তরুণদের কাছ থেকে তাদের ব্যক্তিগত, সামাজিক ও জাতীয় পর্যায়ের সবচেয়ে বড় পাঁচটি উদ্বেগের কথা জানতে চাওয়া হয়। এর মধ্যে ব্যক্তিগত পর্যায়ে তরুণদের মধ্যে বেকারত্ব নিয়েই উদ্বেগ সবচেয়ে বেশি। এটিকে ব্যক্তিগত জীবনের সবচেয়ে উদ্বেগের কারণ বলে জানিয়েছেন ৩৩ দশমিক ৪ শতাংশ তরুণ। বেশির ভাগ তরুণের মতে, সামাজিক জীবনে সবচেয়ে বড় উদ্বেগের কারণ দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি। এটিকে সবচেয়ে বড় সামাজিক উদ্বেগের কারণ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন ৫৩ দশমিক ৩ শতাংশ তরুণ। অন্যদিকে জাতীয় জীবনে উদ্বেগের সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপপ্রয়োগের কথা বলেছেন ৩৬ দশমিক ৮ শতাংশ তরুণ।
এ প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক শিক্ষক ড. মোহাম্মাদ শাহাদাত হোসেন সিদ্দিকী বলেন, সম্প্রতি তরুণদের নিয়ে আমিও একটি গবেষণা করেছি। সেখানেও প্রায় একই রকম তথ্য উঠে এসেছে। আসলে তরুণ প্রজন্মের একটি বড় উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে বেকারত্ব। শিক্ষার সঙ্গে কর্মসংস্থানের দূরত্বের কারণে আমাদের দেশের তরুণ শিক্ষার্থীদের এ উদ্বেগের মাত্রা আরো বেশি। এছাড়া আমরা লেবার ফোর্স সার্ভের দিকে তাকালেও দেখব, দেশের স্নাতক বেকারের সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী। এটাও তরুণদের বড় দুশ্চিন্তার কারণ। বেকারত্ব নিয়ে উদ্বিগ্ন তরুণরা একসময় অতিমাত্রায় হতাশ হয়ে পড়ে। তিনি আরো বলেন, তরুণদের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি, তাদের মধ্যে অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়েও উদ্বেগের মাত্রা অনেক বেশি। তাদের বেশির ভাগই কর্মসংস্থান না হওয়ার পেছনে অনিয়ম-দুর্নীতি, ক্ষমতার অপপ্রয়োগকেই দায়ী করেন। এর মাধ্যমে রাজনীতির প্রতিও তাদের মধ্যে এক ধরনের বিরূপ মনোভাব তৈরি হয়। এছাড়া ব্যক্তিগত জীবনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে সবচেয়ে বড় উদ্বেগ হিসেবে দেখছেন সাড়ে ১৩ শতাংশ তরুণ। এছাড়া দুর্বল পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা, দুর্বল স্বাস্থ্যসেবা এবং বিজনেস স্টার্টআপের পরিস্থিতিকে উদ্বেগের সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন যথাক্রমে সাড়ে ৮ শতাংশ, ৭ দশমিক ৬ শতাংশ এবং সাড়ে ৭ শতাংশ।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com