শনিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯:০৪ অপরাহ্ন




৯৫ ভাগ কেন্দ্র থেকে আমাদের এজেন্ট বের করে দেয়া হয়েছে: সালাহ্ উদ্দিন আহম্মেদ

খবরপত্র ডেস্ক:
  • আপডেট সময় শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০




ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচন

৯৫ ভাগ কেন্দ্র থেকে নিজেদের এজেন্টদেরকে বের করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সালাহ্ উদ্দিন আহম্মেদ। গতকাল শনিবার যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল ও কলেজ কেন্দ্রে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠুভাবে আজ পর্যন্ত কোন নির্বাচন করতে পারেনি। তাই আজকের নির্বাচনও সুষ্ঠু হবে না বলেই আমি মনে করি। বেশিরভার কেন্দ্র থেকে আমাদের এজেন্টদেরকে বের করে দিয়েছে। এজন্য ৯০ থেকে ৯৫ ভাগ কেন্দ্রে আমাদের এজেন্ট নেই।

সালাহ্ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, এটি একটি ভোটারবিহীন নির্বাচন। তারা যেভাবে ত্রাস সৃষ্টি করেছেন এতেকরে জনগণ তাদের ভোট দেবে না। তবুও আমি শেষ পর্যন্ত দেখবো এবং শেষ পর্যন্ত থাকবো। এর আগে শনিবার সকাল ৯টায় এ আসনে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। চলবে টানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) আওতাধীন ১৪টি ওয়ার্ড এবং ডেমরা, যাত্রাবাড়ী এবং কদমতলী থানার কিছু অংশ নিয়ে এই আসন বিস্তৃত। এই আসনে ১৪টি ওয়ার্ডে মোট ১৮৭টি কেন্দ্রের ৮৬৪টি কক্ষে ১হাজার ৯৫টি বুথে ভোটগ্রহণ চলছে। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। যাঁদের মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৪১ হাজার ৪৬৪ জন ও নারী দুই লাখ ২৯ হাজার ৬৬৫ জন। ভোটগ্রহণ শুরু হলেও কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি এখনো তেমন দৃশ্যমান নয়। কোনো কোনো কেন্দ্রে সকাল ১০টায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোটারকে ভোট দিতে দেখা যায়নি।
সাংবাদিকদের কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা, দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে হয়রানি: ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে সাংবাদিকদের ঢুকতে দিচ্ছে না পুলিশ। গতকাল শনিবার বেলা এগারোটায় ওই কেন্দ্রে গেলে পুলিশ সাংবাদিকদের একুশে ভবনের কেন্দ্রে ঢুকতে বাঁধা দিয়ে অন্য ভবনে যেতে বলেন। পুলিশের কনেস্টেবল হানিফ নয়া দিগন্তকে বলেন, আপাতত এই ভবনে সাংবাদিকদের ঢুকতে প্রিজাইডিং কর্মকর্তার নিষেধ আছে। আপনি অন্য ভবনগুলো ঘুরে আসেন। এদিকে ঢাকা জেলা নির্বাচন অফিসের অফিস সহকারী আবুল বাশার এই কেন্দ্রের কন্টোলরুমের দায়িত্বে থাকলেও ১ ঘণ্টা ঘুরেও কন্ট্রোলরুমে ঢুকতে পারেনি।
আব্লু বাশার নয়া দিগন্তকে বলেন, সকাল ১০ টায় আমি কেন্দ্রে আসি। এসে এখানে দায়িত্বরত কন্ট্রোলরুম কোথায় জানতে চাইলে আমাকে বারবার এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পাঠানো হচ্ছে। এর আগে সকাল নয়টায় ভোট শুরু হয়। উল্লেখ্য, ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা গত ৬ মে মারা যাওয়ায় ঢাকা-৫ আসনটি শূন্য হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মো. কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহ্ উদ্দিন আহম্মেদ, জাতীয় পার্টির মীর আব্দুর সবুর, গণফ্রন্টের এইচ এম ইব্রাহিম ভূঁইয়া, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আনছার রহমান শিকদার ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আরিফুর রহমান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪টি থানা মতিঝিল (আংশিক), যাত্রাবাড়ি, ডেমরা ও কদমতলী (আংশিক) নিয়ে আসনটি গঠিত। এ আসনে ১৪টি ওয়ার্ডে মোট ১৮৭টি কেন্দ্রের ৮৬৪টি কক্ষে ১হাজার ৯৫টি বুথে ভোটগ্রহণ চলছে। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। যাঁদের মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৪১ হাজার ৪৬৪ জন ও নারী দুই লাখ ২৯ হাজার ৬৬৫ জন।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com