শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেকের যে কবিকে নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে গভীর রাতে রিজভীর শীতবস্ত্র বিতরণ সরকারের সাফল্যে বিএনপি উদ্ভ্রান্ত হয়ে গেছে : তথ্যমন্ত্রী হাটহাজারীর নাজিরহাট রেলওয়ের ৫২শতক সম্পত্তি উদ্ধার জনৈক সিরাজের নজিরবিহীন সম্পত্তি দখল! রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বড় উদ্যোগ নেওয়া বড় চ্যালেঞ্জ ইলিশ রক্ষার কারিগররা শীতবস্ত্র হাতে পেয়ে মহা খুশী টিকা সংরক্ষণের স্থানে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিতের নির্দেশ বরিশালের উন্নয়নকে আর অবহেলা করা হবে না-এম.এ মান্নান নিজের নামে পদ্মা সেতুর নামকরণ প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রীর ‘না’ পটুয়াখালীর পায়রা সমুদ্র বন্দর ঘিরে পর্যটন বিকাশ হচ্ছে




চকবাজারে আগুনে পুড়লো অর্ধশত ‘অবৈধ’ প্লাস্টিক কারখানা

খবরপত্র ডেস্ক:
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২০




রাজধানীর চকবাজারের নোয়াখালী ভবনে আগুন লেগে ৫০টির মতো ‘অবৈধ’ প্লাস্টিক কারখানায় পুড়ে গেছে। ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের কর্মীরা পাঁচ ঘণ্টা চেষ্টায় আগুন নিভিয়েছেন, তবে এরই মধ্যে ভবনের মধ্যে থাকা সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। গতকাল শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের পরিদর্শক রাসেল সিকদার বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) দিনগত রাতে ৩টা ৪৫ মিনিটে চকবাজারের উর্দুরোড এলাকায় এ আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট শুক্রবার সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। তবে ভবনটি পুরোপুরি পুড়ে গেছে। শুধু দাঁড়িয়ে আছে কংক্রিটের কাঠামো।’
ফায়ার সার্ভিসের কর্মকতারা জানিয়েছেন, কারখানায় দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়েছে। আগুন নেভাতে তাই বেগ পেতে হয়েছে। প্রতিটি অগ্নিকা-ের পর ফায়রা সার্ভিস থেকে সুপারিশ করা হয়, এই এলাকা থেকে অবৈধ প্লাস্টিক কারখানা সরানোর জন্য, কিন্তু কোনও কিছুতেই কাজ হয়নি। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্ধন জানান, এই ভবনটি এর আগেও ফায়ার সার্ভিস পরিত্যক্ত ঘোষণা করে। তারপরও এখানে কারখানা করা হয়েছে। এটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ ভবন। স্থানীয় বাসিন্দা জাহাঙ্গীর বলেন, ‘গত পাঁচ বছরে এই ভবনে চারবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ জানার পরও এখানে প্লাস্টিকের কারখানা করা হয়েছে। কারখানায় দিন-রাত কাজ চলে।’ স্থানীয়রা জানিয়েছেন, অগ্নিকাণ্ডের সময় শ্রমিকদের শিফট পরিবর্তন চলছিল। তাই বেশি শ্রমিক সেখানে ছিলেন না। এক গ্রুপ কাজ শেষ করে অন্য গ্রুপ ফের কাজ শুরু করবেন এমন সময় আগুন লাগে। আগুনের পর শ্রমিকরা দ্রুত বের হয়ে যান। দুজন বয়স্ক লোক আটকা পড়েছিলেন, তারাও পরে বের হয়ে আসেন। হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। ভবনটির একপাশ ধসে পড়েছে। বর্তমানে আরও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে ভবনটি। চকবাজার থানা পুলিশের কয়েকজন সদস্য সেখানে দায়িত্ব পালন করছেন।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com