মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৪৩ অপরাহ্ন

বাস্তবেও ‘লাল সিং’ হতে চান আমির খান

বিনোদন ডেস্ক:
  • আপডেট সময় শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

আমির খানের রাতের ঘুম পালিয়েছে। একদিকে হিন্দি ছবির বাজার মন্দা, অন্যদিকে স্বপ্নের প্রকল্প লাল সিং চাড্ডা বর্জন নিয়ে নেট দুনিয়ায় ঝড় উঠেছে। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার মুক্তি পেয়েছে আমিরের কাঙ্ক্ষিত এই ছবি। কিন্তু মুক্তির পর প্রথম দিনেই বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছে। রাখিবন্ধন উৎসবে মুক্তি পেলেও প্রথম ছবিটির আয় মাত্র ১১ কোটি রুপির কিছু বেশি। কয়েক বছর আগে ভারতের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আমির খান বলেছিলেন, ‘এই দেশ অসহিষ্ণু, এখানে থাকতে ভয় হয়।’ ছবি মুক্তির আগে সেই মন্তব্য সামনে এনে ছবি বর্জনের ডাক দেন প্রতিবাদকারীরা। এ ছাড়া ছবিতে শিখ সম্প্রদায়ের মানুষকে অপমান করা হয়েছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন অনেকে। মুক্তির পর গত বৃহস্পতিবার বেনারস ও পাঞ্জাবে বিক্ষোভ হয়েছে। বেশির ভাগ সমালোচক ছবিটিকে ‘মাঝারি মান’-এর বলে রায় দিয়েছেন। অনেকে ছবিতে আমিরের অভিনয়ের সমালোচনা করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে দ্বিতীয় দিনেই লাল সিং চাড্ডার ১ হাজার ৩০০ শো কমে গেছে। নব্বইয়ের দশকের কালজয়ী ছবি ফরেস্ট গাম্প-এর হিন্দি রিমেক লাল সিং চাড্ডা। সিক্রেট সুপারস্টারখ্যাত পরিচালক অদ্ভেত চন্দন ছবিটি পরিচালনা করেছেন। ছবির মুক্তি সামনে রেখে সম্প্রতি মেহেবুব স্টুডিওতে আমির মুখোমুখি হয়েছিলেন সাংবাদিকের। তাঁদের মধ্যে ছিলেন প্রথম আলোর মুম্বাই প্রতিনিধিও। আড্ডার শুরুতে আমির জানান, ভীষণ যত্ন নিয়ে তাঁরা লাল সিং চাড্ডা নির্মাণ করেছেন। তাই এই ছবির সঙ্গে জড়িয়ে আছে তাঁর আবেগ। ছবিতে ফরেস্ট গাম্প-এর প্রভাব নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার ছবি প্রায় পুরোপুরি ফরেস্ট গাম্প-এর আধারে নির্মিত। কিন্তু এটাকে সম্পূর্ণ পারিবারিক ছবি করে তুলতে আমরা বেশ কিছু প্রাপ্তবয়স্ক দৃশ্য বাদ দিয়েছি।’ ‘লাল সিং চাড্ডা’য় আমিরকে এক সরদারজির চরিত্রে দেখা গেছে। তাই এ ছবিতে তাঁর লুক সম্পূর্ণ ভিন্ন। এই বলিউড সুপারস্টার বরাবরই ছবিতে নিজের লুক নিয়ে খুঁতখুঁতে। ছবিতে নিজের লুকের প্রসঙ্গে আমির জানান, ‘জিমে একবার এক সরদারজির সঙ্গে দেখা হয়েছিল। সেই সরদারজির অনুমতি নিয়ে তাঁর একটা ছবি তুলেছিলাম। “লাল সিং” করার সময় পর্দায় তাঁর অনুকরণ করেছি।’ নিজের চরিত্র নিয়ে আমির জানান, ‘লাল সিং’-এর সরলতা তাঁকে মুগ্ধ করেছে। বাস্তবেও তিনি লালের মতো হয়ে উঠতে চান। ‘লালের চরিত্রটা নিষ্পাপ। তাঁর মনে কোনো ময়লা নেই। কেউ ক্ষতি করলেও লাল কখনো তার কোনো ক্ষতি চায় না। লালের সবচেয়ে বড় গুণ—তিনি জানেন, অতীতকে কীভাবে পেছনে ফেলে আসতে হয়। কিন্তু আমরা অতীতের বোঝা পিঠে নিয়ে চলতে ভালোবাসি,’ বলেন আমির। কথা প্রসঙ্গে তিনি জানান, ফরেস্ট গাম্প ছবির নায়ক টম হ্যাংকসের সঙ্গে একবার দেখা হয়েছিল। কিন্তু তাঁদের মধ্যে খুব একটা কথাবার্তা হয়নি।

লাল সিং চাড্ডা ছবিজুড়ে আছে লাল ও রুপার নিখাদ প্রেমের গল্প। ছবিতে ‘রুপা’র ভূমিকায় আছেন বলিউড অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান। আগে আমির ও কারিনাকে একসঙ্গে তালাশ, থ্রি ইডিয়টস ছবিতে দেখা গেছে। তৃতীয়বার কারিনার সঙ্গে জুটি বাঁধার প্রসঙ্গে আমির বলেন, ‘আমার সব সময় মনে হয়, কারিনা অভিনেত্রী হিসেবে দুর্দান্ত। কাভি খুশি কাভি গাম ছবিতে “পু”র চরিত্রে ওকে দেখে অবাক হয়েছিলাম। আমি জোর করে চার ঘণ্টা ধরে কারিনাকে এই ছবির গল্প শুনিয়েছি। এই ছবির জন্য তিনিই প্রথম অডিশন দিয়েছিলেন। এটা (অডিশন) নিয়ে আমার ওপর আজও চোটপাট করেন কারিনা। মানুষ হিসেবেও তিনি দারুণ।’ এখন প্রেক্ষাগৃহে ছবি মুক্তির পর সাফল্য পেলেও খুব দ্রুই ওটিটিতে চলে আছে। লাল সিং চাড্ডা কবে আসছে, তার জবাবে আমির বলেন, ‘ছয় মাসের আগে আনার কথা ভাবছি না। কারণ, আজকাল ছবি মুক্তির মাসখানেক পর ওটিটিতে চলে আসছে। তাই মানুষ ভাবছেন যে একটু অপেক্ষা করলেই ওটিটিতে ছবিটা দেখতে পাবেন। বড় পর্দার জন্য সিনেমা বানিয়েছি। তাই চাইব, অনেক মানুষ বড় পর্দায় সিনেমা দেখুক। তবে মানুষকে আবার সিনেমা হলে ফেরাতে হলে ছবির গল্প ভালো হতে হবে।’




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com