বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

ফোনের অ্যাপই হবে নোটবুক

আইটি ডেস্ক:
  • আপডেট সময় সোমবার, ২৫ মার্চ, ২০২৪

বর্তমানে স্মার্টফোন ছাড়া এক মুহূর্তও জীবন কল্পনা করা যায় না। যে কোনো কাজে এখন স্মার্টফোন প্রথম পছন্দ। দরকারে বা ইচ্ছামতো কারও সঙ্গে যোগাযোগ করে নিতে পারছেন। আবার ধরুন বিশ্বের কোনো স্থানের খবর লাগবে, কিংবা কিছু জানতে চান লাইব্রেরির শত শত বই ঘেঁটে এখন সেই উত্তর বের করতে হয় না। এক ক্লিকেই স্মার্টফোনে কাজটি করে নেওয়া যায়। এছাড়া নিজের ছবি, ভিডিও, দরকারি ফাইলপত্র, সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার, নাটক সিনেমা দেখা সবই হচ্ছে এক স্মার্টফোনে। তবে নোট করার জন্য হাতের কাছে নোটবইয়ের আর কি দরকার। ধরুন কোনো কিছু নোট করে রাখতে চাচ্ছেন বা হঠাৎ মিটিংয়ে গেছেন, নোট করার জন্য নোটবই সঙ্গে রাখতে হবে না। ফোনেই কাজটি করে নিতে পারবেন। স্মার্টফোনে বেশ কিছু অ্যাপ আছে যেগুলোর কন্ট্রোলিং একটু শিখে নিলেই আর হাতে নোট নেওয়ার ঝামেলা নেই। যেমন খুশি সেগুলোকে ব্যবহার করা যায়। অ্যাড করা যায় মজাদার ছবি বা ব্যাকগ্রাউন্ডও।
জেনে নিন এমন কয়েকটি অ্যাপ সম্পর্কে-
গুগল কিপ: নোট নেওয়ার সবচেয়ে সহজ অ্যাপ। মনের যে কোনো ভাবনা, মিটিংয়ের নির্যাস খুব সহজেই রাখা যায় এই অ্যাপে। গুগলের অন্যান্য ফিচার যেমন গুগল ক্যালেন্ডার এই অ্যাপ থেকে খুব সহজেই অ্যাপ্লাই করা যায়। অর্থাৎ কোন ডেটের কোন সময়ে আপনি নোট রাখতে চান, সেটা সহজেই করে দেবে এই অ্যাপ। এই অ্যাপে নেওয়া যে কোনো নোটকে সহজেই গুগল ডকে কনভার্ট করা যায়। রয়েছে, মজাদার ফন্ট,ব্যাকগ্রাউন্ড। যা কোনো প্রেজেন্টেশনের সময়ে আপনার কাজে লাগবে। অ্যানড্রয়েড বা আইওএসে ফ্রি ডাউনলোড করা যায়।
মাইক্রোসফট ওয়াননোট: এখানে যে কোনো নোটই আলাদা একটা পেজে নেওয়া যায়। সেই পেজে থাকে অসংখ্য আকর্ষণীয় ফন্ট, পিকচার, সাউন্ড, অডিও, ইমেজ, টেবিল, ভিডিও। আপনি চাইলেই আপনার নোটের সঙ্গে এগুলো অ্যাড করে নিতে পারেন। বাড়তি পাওনা এই অ্যাপ থেকে অ্যাকসেস করা যায় আউটলুকের মতো মাইক্রোসফটের বেশ কয়েকটি অ্যাপ। আউটলুকে মিটিং হলে তার নোট আপনি ডিরেক্ট নিতে পারেন এই অ্যাপে। সেটিকে প্রেজেন্টেবল করার হাজারো উপায় থাকছে। এই অ্যাপও অ্যানড্রয়েড কিংবা আইওএসে ফ্রি ডাউনলোড করা যায়।
এভারনোট: বিষয় অনুযায়ী আলাদা আলাদা সেগমেন্টে ভাগ করে রাখার সুযোগ রয়েছে এই অ্যাপে। এছাড়া এই পেইড অ্যাপে আপনি মাসে ৬০ এমবি ডেটা আপলোড করতে পারেন। এআই নোট ক্লিনআপ নামে একটি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলের ফিচার্স অ্যাড করা হয়েছে এই অ্যাপে। এর সাহায্যে নোট নেওয়ার অভিজ্ঞতাটাই অন্য রকমের হবে আপনার। তবে এতে আপনাকে আগে সাবস্ক্রিপশন করতে হবে। এজন্য মাসে ১৫ ডলার খরচ করতে হবে, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১ হাজার ৬৪৬ টাকার মতো।
বেয়ার মার্কডাউন নোটস: নোট নেওয়ার যত অ্যাপ আছে, এই অ্যাপ তাদের মধ্যে প্রথম সারিতে। তবে অ্যাপটি শুধু আইওএস ও ম্যাকআইওসে ডাউনলোড করা যাবে। এটির ফ্রি ভার্সন আছে। রয়েছে প্রো ভার্সনও। এর জন্য মাসে দিতে হয় তিন ডলার অর্থাৎ আড়াইশো টাকার মতো। এই অ্যাপটির ফ্রি ভার্সন সাধারণ কাজের জন্য বেশ ভালো। যে কোনো নোট ট্যাগ করার অপশন রয়েছে এই অ্যাপে। বাঁ দিকের কলমে এই অপশনটি রয়েছে। এছাড়া যে কোনো নোটকে আপনি কাস্টমাইজড করে রাখতে পারেন এই অ্যাপে। সূত্র: মেক অব ইউজ




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com