শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
বিশ্বমানের টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি সেবা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে : রাষ্ট্রপতি রাসূল (সা.)-এর সীরাত থেকে শিক্ষা নিয়ে দৃঢ় শপথবদ্ধ হয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে—ড. রেজাউল করিম চৌদ্দগ্রামে বাস খাদে পড়ে নিহত ৫, আহত ১৫ চাহিদার চেয়ে ২৩ লাখ কোরবানির পশু বেশি আছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী রাজনীতিবিদেরা অর্থনীতিবিদদের হুকুমের আজ্ঞাবহ হিসেবে দেখতে চান: ফরাসউদ্দিন নতজানু বলেই জনগণের স্বার্থে যে স্ট্যান্ড নেয়া দরকার সেটিতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার মালয়েশিয়ার হুমকি : হামাস নেতাদের সাথে আনোয়ারের ছবি ফেরাল ফেসবুক হামাসের অভিযানে ১২ ইসরাইলি সেনা নিহত আটকে গেলো এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের অর্থ ছাড় গাজানীতির প্রতিবাদে বাইডেন প্রশাসনের ইহুদি কর্মকর্তার লিলির পদত্যাগ

জামালপুরে ব্রহ্মপুত্র নদে ঐতিহ্যবাহী অষ্টমীর স্নান, পুণ্যার্থীদের ঢল

আবুল কাশেম জামালপুর
  • আপডেট সময় বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪

জামালপুর ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে অষ্টমীর পুণ্যস্নান করতে পুণ্যার্থীদের ঢল নেমেছে। ১৬ এপ্রিল (মঙ্গলবার) পুণ্যতোয়া খ্যাত ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অষ্টমীর স্নান অনুষ্ঠিত হয়। স্নান উপলক্ষে জামালপুর শহর ঘেঁষা ব্রহ্মপুত্র নদে প্রতি বৎসর স্থানীয় প্রশাসন সার্বিক সহযোগিতায় আয়োজন করে সাথে স্নান উৎসব কমিটি। ৪টা থেকে শুরু হয়ে দিনব্যাপী স্নান উৎসবে বিপুলসংখ্যক পুণ্যার্থীরা যোগদিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট হিন্দু ব্রাহ্মণ সুত্রে জানাযায় পরশুরাম মুনি রাগের বসবতি হয়ে কোঠার দিয়ে পিতা-মাতাকে হত্যার পর তার হাতে কোঠারসহ হাতল লেগে যায়। পরে তিনি দীর্ঘদিন তপস্যার পর নারানগঞ্জ জেলার সোনারগাও লাঙ্গলবন্দের এসে ব্রহ্মপুত্র নদে স্নান করে পরশুরাম মুনি পাপমোচন হয়েছিলেন। শাস্ত্রোক্ত পরশুরাম মুনির পাপমুক্তির কথা স্মরণ করেই বহু বছর ধরে হিন্দু সম্প্রদায়েরর পুণ্যার্থীরা চৈত্রমাসের শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে জগতের সকল পবিত্র স্থানের পুণ্য ব্রহ্মপুত্র নদে মিলিত হয়ে অষ্টমী-পুণ্যস্নান করে আসছেন। ব্রহ্মপুত্র নদে স্নানের সময় ফুল, বেলপাতা, ধান, দূর্বা, পিতৃপুরুষের উদ্দেশে তর্পণ করা হয়। প্রায় ৪শ’ বছর ধরে জামালপুর, শেরপুর, টাঙ্গাইল ও সিরাজগঞ্জ জেলার সনাতন ধর্মাবলম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন প্রতি বছর শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে ব্রহ্মপুত্র নদে এস পুণ্যস্নান সম্পন্ন করে থাকেন। এ উপলক্ষে জামালপুর শহরে মেলার আয়োজন করে থাকেন। ¯œান শেষে সকলেই মেলা থেকে মুয়া, মুরি, জুড়ি, বাতাসা, জিলাপী, তুরমুজ,শিশুদের বিভিন্ন খেলনা ক্রয়-বিক্রয় করে থাকেন। এ ব্যাপারে জামালপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মেহনাজ ফেরদৌস বলেন, অষ্টমীর স্নান উপলক্ষে নির্বিঘেœ সম্পন্ন করতে উপজেলা প্রশাসন পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করা হচ্ছে।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com