মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
পি কে হালদারকে হস্তান্তরে সময় লাগতে পারে : দোরাইস্বামী ২১ ডেঙ্গু রোগী ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি হজে যেতে পাসপোর্টের মেয়াদ থাকতে হবে ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত কুমিল্লা সিটি নির্বাচন: মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপির দুই নেতা সম্রাটের জামিন বাতিলের বিষয়ে আদেশ আজ আর্থিক অনুমোদনের ক্ষমতা কমলো পরিকল্পনামন্ত্রীর হানিমুনেই আমাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল জনি ডেপ: অ্যাম্বার ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে পরিবহন ও যোগাযোগ খাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ পদ্মা সেতুর টোল নির্ধারণ: বড় বাস ২৪০০, মাঝারি ট্রাক ২৮০০, কার/জিপে লাগবে ৭৫০ টাকা কবিতার ইতিহাসে কাজী নজরুলের ‘বিদ্রোহী’ এক অনন্য সাধারণ রচনা : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

আমার পড়া বই

আবু হামীম হারুন
  • আপডেট সময় শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
ড. মুহাম্মদ আবদুল বারী আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন একজন লেখক ও গবেষক। কিন্তু বাংলা ভাষা-ভাষী পাঠকদের কাছে খুবটা পরিচিত নন। কারণ বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত এই ব্রিটিশ শিক্ষাবিদ অধিকাংশ গ্রন্থই রচনা করেছেন ইংরেজি ভাষায়। তিনি একজন আচরণবিষয়ক বিশেষজ্ঞ তিনি একজন আচরণবিষয়ক বিশেষজ্ঞ ( Behaviour specialist ) এবং মুসলিম প্যারিন্টিং প্রশিক্ষক। তিনি ১৯৮৬ সালে লন্ডনের ‘কিংস কলেজ’ থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন। পদার্থ বিজ্ঞানের একজন গবেষক হিসেবে প্রথমে কর্মজীবন শুরু করলেও পরে তিনি আচরণবিষয়ক গবেষণা এবং শিক্ষকতা শুরু করেন। বিশেষ করে পাশ্চাত্যের আল্টা মর্ডান কালচারের সয়লাবে ধ্বংসের মুখোমুখি পরিবারিক জীবন, ভবিষ্যত প্রজন্ম এবং মানবিক বোধগুলো জাগ্রত করতে তিনি ব্যাপক অধ্যয়ন, গবেষণা এবং তাঁর চিন্তা দর্শনকে ছড়িয়ে দিতে ব্যাপক লেখা-লেখি শুরু করেন। তাঁর এই গবেষণার ফসল: A Guide to Parenting in Islam: Addressing Adolescence, A Guide to Parenting in Islam: Cherishing Childhood, Marriage and Family Building in Islam, Building Muslim Families: Challenges and Expectations
ইংরেজি ভাষার পাঠকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। তার লেখা অধিকাংশ গ্রন্থ বিশ্বখ্যাত অন লাইন শপ আমাজনে পাওয়ায়। আজকের আলোচিত আমার পড়া বইটির নাম ‘মুসলিম প্যারেন্টিং সন্তান প্রতিপালন গাইড’। বইটি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের পাঠক সমাদৃত সৃজনশীল পুস্তুক প্রকাশনা সংস্থা গার্ডিয়ান পাবলিকেশন্স, ৩৪,সর্থব্রুক হল রোড,মাদরাসা,সূত্রাপুর,ঢাকা-১১০০। www.gurdianpubs.com|
আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির ছোঁয়ায় দ্রুত পরিবর্তিত আর্থ-সামাজিক-ব্যবস্থার সাথে তাল মিলানোর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হচ্ছে এ বিশ্বের প্রতিটি মানুষকে। এই সমস্যা শুধু মুসলমানদের নয় চিরায়ত মূল্যবোধ লালনকারী জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের মানুষের। কারণ চিরায়ত মূল্যবোধ ছিন্নকারী সন্তানরা কক্ষচ্যূত হয়ে শুধু নিজেকেই ধ্বংস করে না, তাদের কারণে হারিয়ে যায় মা-বাবার সোনালি স্বপ্ন, দেশ, জাতি এবং গোটা বিশ্ব পরিণত হয় অশান্তির অন্ধকার নরকে। তাই প্রতিটি বাবা-মা চান তাদের ভবিষ্যত স্বপ্ন বাস্তবায়নের অবলম্বন সন্তানদেরকে প্রকৃত মানুষ করে গড়ে তুলতে। বিশেষ করে মুসলিমসহ ধর্মে বিশ্বাসী প্রত্যেক মানুষ চান তাদের মৃত্যুর পরও যেন সুসন্তানের সুকর্মের ফলাফল তাদেরকে মহান সৃষ্টিকর্তার শাস্তি থেকে রক্ষা করে।
ড. মুহাম্মদ আবদুল বারী ইউরোপের সমাজ সংস্কৃতি ও মানুষের আচার আচরণের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে পরিচিত। বিশেষ করে মুসলিম সম্প্রদায়ের অনেক সমস্যা তিনি জীবনঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষক করার সুযোগ পেয়েছেন এবং সমাধান দিয়েছেন। তার সেই অভিজ্ঞতার ফসল আমার পঠিত গ্রন্থটি।
যদি কেউ ভেবে থাকেন ড. মুহাম্মদ আবদুল বারীর এই গ্রন্থটি শুধু ইউরোপ আমেরিকার অভিভাবকদের জন্য গাইড বুক। তাদের বলছি, বইটি পড়লে আপনার এই ভুল অবশ্যই ভাঙবেই। বইটি পড়ার পর আমার মনে এই বিশ্বাস জন্মেছে। আমি বিশ্বাস করি, গ্রন্থটি বিশ্বগ্রামের প্রত্যেক অভিভাবককেই পথ দেখাবে । আমি ড. মুহাম্মদ আবদুল বারীর সাফল্য কামনার সাথে সাথে গ্রন্থটির বহুল প্রচার কামনা করছি।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com