মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
জয়পুরহাটে ১ লাখ ৩৫ হাজার মেট্রিক টন শাক সবজি উৎপাদন হয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক রেমিট্যান্স ক্যাম্পেইনের সাথে ১০টি এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন চুয়াডাঙ্গা জেলার হাজরাহাটী এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ করল শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক শ্রীমঙ্গল উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচন ঝলক সভাপতি এবং আখতার সম্পাদক সংগীত পরিচালক আনোয়ার জাহান নান্টু আর নেই এ যেন চুয়াত্তরের দুর্ভিক্ষের প্রতিচ্ছবি, পদধ্বনি: প্রিন্স ভূমিকম্পে ধ্বংসস্তূপ তুরস্ক ও সিরিয়া, মৃত প্রায় ২০০০ প্রতিটি জায়গায় লুটপাটের কারণে দ্রব্যমূল্য বেড়ে যাচ্ছে : খসরু হিরো আলম নিয়ে কিছুই বলিনি, ফখরুলের মন্তব্যের জবাব দিয়েছি: কাদের তিন ফসলি জমিতে সরকারি প্রকল্পও নয়: প্রধানমন্ত্রী

নরসিংদী সদর হাসপাতালে ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের দৌরাত্ম্যে নাজেহাল রোগীরা

এম.এ. আউয়াল নরসিংদী :
  • আপডেট সময় বুধবার, ৩০ মার্চ, ২০২২

নরসিংদী সদর হাসপাতালে রোগীর চেয়ে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের বেশি দৌরাত্ম্য বেড়ে গেছে। সময় অসময়ে বিভিন্ন কোম্পানির প্রতিনিধিরা স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতে নিজেরা প্রভাব বিস্তার করছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে রোগী ও স্বজনদের। তবে এ ব্যাপারে নরসিংদী সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একেবারেই নীরব। ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের ভিড়ে বৃদ্ধ, শিশু এবং মহিলা রোগীরা নাজেহাল হচ্ছেন। রোগিদের ব্যবস্থাপত্র নিয়ে কৌশলে ফটোশেসনে মেতে উঠছেন এসব ওষুধ কোম্পানি প্রতিনিধিরা। এতে হাসপাতালের পরিবেশ বিপর্যয় ঘটেছে। কতিপয় ডাক্তার সর্বক্ষণ ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের সাথে করে নিয়ে ঘুরছেন। এতে ক ডাক্তার, আর কে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি, সেটা চেনাও মশকিল হয়ে পড়েছে। নরসিংদী সদর হাসপাতালে ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানির রিপ্রেজেনটেটিভরা নিজেদের অবস্থান কোম্পানির কাছে তুলে ধরতে রোগীর ব্যবস্থাপত্রে নিয়ে মোবাইলে ছবি তুলে নিচ্ছেন। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রিপ্রেজেনটেটিভদের ভিড় পড়ে সদর হাসপাতালে, বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ক্লিনিক এবং ফার্মেসীগুলোতে। ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নিয়ে রোগীরা বেরিয়ে এলেই প্রেসক্রিপশন দেখে ছবি তুলতে হুমড়ি খেয়ে পড়ে কোম্পানির লোকেরা। ফলে রোগী ও তার স্বজনরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। নিয়মানুযায়ী সপ্তাহে দুদিন হাসপাতালে চিকিৎসকদের ভিজিট করার কথা। কিন্তু রিপ্রেজেন্টেটিভরা এই নিয়ম অমান্য করে প্রতিদিন নরসিংদী সদর হাসপাতালে প্রবেশ করে চিকিৎসকদের সঙ্গে খোশ গল্পে মেতে উঠছেন তারা। এ ছাড়া রোগীদের প্রেসক্রিপশন নিয়ে তাদের কোম্পানির ওষধ লেখা আছে কি না তা দেখতে ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে নরসিংদী হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. লুপা চৌধুরী জানান, ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিরা ডাক্তারদের সাথে সাক্ষাৎ করবেন, তবে তা নিয়মানুযায়ী করতে হবে। যাতে রোগীরা হয়রানীর শিকার না হয়। তিনি আরো জানান, আমি সবে মাত্র এখানে যোগদান করেছি। তবে বিষয়টি যেহেতু আমার নজরে এসেছে আমি যথা শিঘ্রী এর ব্যবস্থা নিবো।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com