শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ০২:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
বিশ্বমানের টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি সেবা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে : রাষ্ট্রপতি রাসূল (সা.)-এর সীরাত থেকে শিক্ষা নিয়ে দৃঢ় শপথবদ্ধ হয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে—ড. রেজাউল করিম চৌদ্দগ্রামে বাস খাদে পড়ে নিহত ৫, আহত ১৫ চাহিদার চেয়ে ২৩ লাখ কোরবানির পশু বেশি আছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী রাজনীতিবিদেরা অর্থনীতিবিদদের হুকুমের আজ্ঞাবহ হিসেবে দেখতে চান: ফরাসউদ্দিন নতজানু বলেই জনগণের স্বার্থে যে স্ট্যান্ড নেয়া দরকার সেটিতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার মালয়েশিয়ার হুমকি : হামাস নেতাদের সাথে আনোয়ারের ছবি ফেরাল ফেসবুক হামাসের অভিযানে ১২ ইসরাইলি সেনা নিহত আটকে গেলো এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের অর্থ ছাড় গাজানীতির প্রতিবাদে বাইডেন প্রশাসনের ইহুদি কর্মকর্তার লিলির পদত্যাগ

দুটো বিমানের অবতরণে গভীর উদ্বেগ মিয়া গোলাম পরওয়ারের

খবরপত্র অন লাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪
মিয়া গোলাম পরওয়ার

বাংলাদেশের বিমানবন্দরে কুটনৈতিক সম্পর্ক বহির্ভূত ইসরাইলী দুটো বিমানের অবতরনের বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ও তার রহস্য উন্মোচনের আহবান জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ার ১২ এপ্রিল এক বিবৃতিতে বলেছেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মত ১০৮ গ্রস মেট্রিক টন কার্গো বহন করতে সক্ষম দুটি বোয়িং ৭৪৭-৪০০ বিসিএফ বিমান ইসরায়েলের তেল আবিবের বেন গুরিয়ন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।
ন্যাশনাল এয়ার কার্গো ইনকর্পোরেটেড ইউএসএ দ্বারা নিবন্ধিত ও পরিচালিত পণ্যসম্ভার বিমানটি  (ফ্লাইট নম্বর N8806) ৭ এপ্রিল তেল আবিব থেকে  ঢাকায় অবতরণ করে এবং একই দিনে  ঢাকা থেকে ছেড়ে যায়। ফ্লাইট নম্বর N8848 (NCR848) এর অধীনে একই কোম্পানির দ্বারা পরিচালিত দ্বিতীয় ফ্লাইটটি ১১ এপ্রিল সরাসরি তেল আবিব থেকে ঢাকায় আসে এবং ১২ এপ্রিল ঢাকা ছেড়ে যায়। বহুল প্রচারিত মানব জমিনের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে দুটি ফ্লাইটই সরাসরি তেল আবিব থেকে ঢাকায় এসেছিল।

গাজায় গণহত্যাকারী মানবতার দুশমন ইসরাইলের দুটো কার্গো বিমান কোন কারনে কি উদ্দশ্যে বাংলাদেশের বিমান বন্দরে অবতরন করলো এবং অবতরনের পর তারা কি কাজে সময় ব্যয় করেছে তা বাংলাদেশের মানুষ জানতে চায়।
ইসরায়েল থেকে বাংলাদেশে সরাসরি ফ্লাইটের কোনো নজির নেই। জরুরী অবতরণ ছাড়া বাংলাদেশে পণ্য বহনকারী ইসরায়েল  ফ্লাইটের অবতরণ একটি নজিরবিহীন ঘটনা। কারণ বাংলাদেশ ও ইসরায়েলের মধ্যে আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই, এবং বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিকভাবে ইসরাইলকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় না। যে রাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশের কোন কুট নৈতিক সম্পর্ক নেই সেই রাষ্ট্রের বিমানের অবতরন রহস্য জনক ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকী স্বরূপ।
প্রধানমন্ত্রী গাজায় গণহত্যাকারী মানবতার দুশমন ইসরাইলের বিরুদ্ধে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অংগনে বক্তব্য রেখে আসছেন। ৭ এপ্রিল ইসরাইলের বিমান অবতরনের পর ৬ দিন ও আরো একটি বিমান অবতরনের পর দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হচ্ছে অথচ সরকার জাতির সামনে ঘটনার রহস্য উন্মোচন করেন নি।সরকারের এ নীরবতা আমাদেরকে উদ্বিগ্ন করেছে।
আমরা অবিলম্বে ইসরাইলী বিমান অবতরনের বিষয়ে সুপ্সষ্ট ব্যাখ্যা দিয়ে জাতিকে উদ্বেগ থেকে মুক্ত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানাচ্ছি। প্রেসবিজ্ঞপ্তি




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com