রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫৯ অপরাহ্ন




নেতাকর্মীদের ওপর সরকার জুলুম চালাচ্ছে: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১




সরকারের কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘জুলুমবাজ সরকার নির্বিচারে মানুষ হত্যা, শান্তিপূর্ণ সভা-সমাবেশে হামলা এবং জনগণের সাংবিধানিক ও গণতান্ত্রিক অধিকার হরণের প্রতিবাদে বিএনপি আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। এই আন্দোলনকে দমন করতে গণবিরোধী সরকার ফ্যাসিবাদী কায়দায় হামলা-মামলা-দমন-নিপীড়নের সাঁড়াশি অভিযান অব্যাহত রেখেছে।’ গত বুধবার (৩১ মার্চ) দলটির ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স সই করা এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব।
ফখরুল বলেন, ‘চট্টগ্রামে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, মিথ্যা মামলায় হয়রানি চলছে। গতকাল বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম, মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন, সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান, মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এস এম সাইফুল আলম, নাজিমুর রহমান, ইয়াসিন চৌধুরী লিটন, মো. শাহ আলম, মহানগর যুবদল সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তি, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহেদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি এইচ এম রাশেদ খান, সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলু, মহানগর মহিলা দল সভাপতি মনোয়ারা বেগম মনি, মহানগর ছাত্রদলের আহ্বায়ক সাইফুল আলম, সদস্য সচিব শরিফুল ইসলাম তুহিনসহ মহানগর ও বিভিন্ন থানা নেতাদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার অভিযান চালানো হচ্ছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘গত রাতে পটুয়াখালী জেলা বিএনপি কার্যালয়ে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করেছে। হামলায় তিন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। পুলিশ হামলাকারীদের গ্রেফতার না করে উল্টো বিএনপির ৯ জন নেতাকর্মীকে আটক করেছে।’ ‘গত সোমবার নওগাঁ জেলায় বিএনপির পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের গুলি, টিয়ারগ্যাস ও লাঠিচার্জের নির্মম হামলার পর রাতে নওগাঁ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সদস্য ও মহাদেবপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি রবিউল আলম বুলেট, মহাদেবপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের মহাদেবপুর থানা শাখার সভাপতি আব্দুল হান্নান, মহাদেবপুর থানা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক কাজী সোবহান, সদস্য ইখতিয়ার উদ্দিন দুরন্ত, চঞ্চল, নওগাঁ পৌর বিএনপি নেতা মুকুল স্বর্ণকার, এনামুল হক, বাবু, জেলা যুবদল সদস্য আনোয়ার হোসেন, শহীদুল ইসলামের ওপর হামলা চালিয়ে আহতাবস্থায় গ্রেফতার করা হয়েছে।’
বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগের রাতে ভোটের মাধ্যমে নির্লজ্জভাবে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী সরকার এখন আরও বেপরোয়াভাবে ফ্যাসিবাদী কায়দায় দেশ শাসন করছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদেরকে রাজনীতির অঙ্গন থেকে সরিয়ে দিতে তাদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন যেন বর্তমান আওয়ামী সরকারের দৈনন্দিন কর্মসূচিতে পরিণত হয়েছে। দেশকে বিরোধীদল শূন্য করতে বিএনপির যেকোনো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা, গুলিবর্ষণ ও নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতার করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে তারা। গতকাল দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ও গ্রেফতার বর্তমান গণধিকৃত সরকারের ধারাবাহিক অপকর্মেরই অংশ।’ বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে উল্লিখিত নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার ও তাদের নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান। তিনি আহত নেতাকর্মীদের সুস্থতা কামনা করেন।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com