বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
মধুপুরে প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রতিরোধে তাল গাছের চারা রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন চৌহালীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্মরণে স্মৃতি স্তম্ভ মৃত্যুঞ্জয়ী উদ্বোধন রাজশাহীতে অপহৃত দুই বোন উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেফতার পলাশবাড়ীতে অসুস্থ শিশুকে বাঁচাতে সাহায্যের আবেদন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে মন্দির নির্মাণ ও আলোচনা সভা গজারিয়ায় বাউশিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান এর নিজস্ব অর্থায়নে রাস্তা সংস্কার নগরকান্দায় প্রচার মাধ্যমে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই: মান্না জামায়াত নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবিতে লন্ডনে বিক্ষোভ ই-কমার্সের প্রতারণার দায়িত্ব নিতে হবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে : অর্থমন্ত্রী




আসছে সৌরঝড়, তছনছ হতে পারে ইন্টারনেট সংযোগ

আইটি ডেস্ক:
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১




সৌরঝড়ে অকেজো হতে পারে স্যাটেলাইটগুলো। নষ্ট হতে পারে সাবমেরিন কেবল। এতে বিচ্ছিন্ন হতে পারে পৃথিবীর ইন্টারনেট সংযোগ। এক গবেষণাপত্রে এমনটাই জানানো হয়েছে। গত আগস্ট মাসে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত ‘এসিএম সিগকম ২০২১’ সম্মেলনে এই গবেষণাপত্রটি উত্থাপিত হয়। গবেষণাপত্রের ভাষ্য, আগামী দশকের মধ্যে মহাকাশে আবহাওয়ার চরম বিপর্যয় দেখা দিতে পারে, এমন আশঙ্কা ১ দশমিক ৬ থেকে ২ শতাংশ পর্যন্ত। ‘করোনাল মাস ইজেকশন’কে বলা হয় সৌরঝড়। জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মতে, সৌরঝড়ের ঘটনায় সূর্য থেকে তীব্র চৌম্বকীয় কণার নিঃসরণ হয়। কণাগুলো ঘণ্টায় কয়েক মিলিয়ন কিলোমিটার বেগে ছুটতে পারে। মাত্র ১৩ ঘণ্টা থেকে পাঁচ দিনের মধ্যে পৃথিবীতে এসে পৌঁছাতে পারে।
ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়, পৃথিবীর পরিমণ্ডল এই কণাগুলো থেকে মানুষ রক্ষা পেতে পারে। তবে পৃথিবীর চৌম্বকক্ষেত্রের ক্ষতি করবে। একই সঙ্গে তীব্র বৈদ্যুতিক তরঙ্গ প্রবাহিত করে মানুষের তৈরি অবকাঠামোগুলোর ক্ষতি করতে পারে। গবেষণাপত্রের একজন লেখক যুক্তরাষ্ট্রের আরভাইনের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার কম্পিউটার বিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক সংগীতা জ্যোতি বলেন, বেশি ও কম সক্রিয়তার চক্রের মধ্য দিয়ে যায় সূর্য। প্রতি ১১ বছরে এই চক্র আবর্তিত হয়। ১০০ বছরের আরেকটি চক্র আছে সূর্যের। ইন্টারনেট অবকাঠামোর উন্নয়নের সময়টাতে সূর্য কম সক্রিয় ছিল। তবে শিগগিরই ১০০ বছরের চক্রের চূড়ায় পৌঁছাবে। ফলে আমাদের জীবদ্দশায় শক্তিশালী একটি সৌরঝড় দেখার আশঙ্কাই বেশি। তবে সৌরঝড়ে এশিয়ার দেশগুলো তুলনামূলক নিরাপদ বলে মনে করেন বিজ্ঞানীরা। তদের মতে, নিম্ন অক্ষাংশের দেশগুলোর ঝুঁকি অনেক কম। তবে সেটা নিশ্চিত করে বলার জন্য আরও গবেষণার প্রয়োজন বলেও মনে করেন তারা।
জানা যায়, প্রথম সৌরঝড় হয় ১৮৫৯ সালে। সেটি প্রায় ১৭ ঘণ্টায় পৃথিবীতে পৌঁছেছিল। ওই সময় টেলিগ্রাফ নেটওয়ার্কের ক্ষতি করেছিল। বৈদ্যুতিক শক অনুভূতও হয়েছিল। ১৯২১ সালের আরেক সৌরঝড় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের টেলিগ্রাফ সংযোগ এবং রেলপথের ক্ষতি করেছিল। ১৯৮৯ সালে তুলনামূলক কম শক্তির আরেক ঝড়ে কানাডার কেবেকের বিদ্যুতের গ্রিড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com