শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০২:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
বিশ্বমানের টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি সেবা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে : রাষ্ট্রপতি রাসূল (সা.)-এর সীরাত থেকে শিক্ষা নিয়ে দৃঢ় শপথবদ্ধ হয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে—ড. রেজাউল করিম চৌদ্দগ্রামে বাস খাদে পড়ে নিহত ৫, আহত ১৫ চাহিদার চেয়ে ২৩ লাখ কোরবানির পশু বেশি আছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী রাজনীতিবিদেরা অর্থনীতিবিদদের হুকুমের আজ্ঞাবহ হিসেবে দেখতে চান: ফরাসউদ্দিন নতজানু বলেই জনগণের স্বার্থে যে স্ট্যান্ড নেয়া দরকার সেটিতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার মালয়েশিয়ার হুমকি : হামাস নেতাদের সাথে আনোয়ারের ছবি ফেরাল ফেসবুক হামাসের অভিযানে ১২ ইসরাইলি সেনা নিহত আটকে গেলো এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের অর্থ ছাড় গাজানীতির প্রতিবাদে বাইডেন প্রশাসনের ইহুদি কর্মকর্তার লিলির পদত্যাগ

সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে দেশকে পরাধীন করে রেখেছে : মির্জা ফখরুল

খবরপত্র অন লাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪
হরিপুরে বক্তব্য রাখছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে দেশকে পরাধীন করে রেখেছে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘হরিপুর উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব আকরামকে অন্যায়ভাবে নির্যাতন করে পুলিশ কাস্টডিতে হত্যা করা হয়েছে।’ শুক্রবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে আকরামের মৃত্যুতে আয়োজিত এক শোকসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘পুলিশের হেফাজতে যখন একজন অসহায় নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয় তখন একটি রাষ্ট্রের কি অবস্থা দাঁড়ায়। মানুষ কি ভাববে? মানুষ ভাববে দেশে কোনো আইনের শাসন নাই। এখানে যারা রক্ষক তারাই হয়ে গেছে নির্যাতনকারী ভক্ষক। আজকে আওয়ামী লীগ সরকার এই রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে দেশকে পরাধীন করে রেখেছে। আমরা নিজ দেশে পরবাসী হয়ে গেছি।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সত্যিকার অর্থে এই দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। এখন সবকিছু নির্ধারণ করে পুলিশেরা। এখন আর আওয়ামী লীগ নাই, এখন এটা পুলিশ লীগ। পুলিশ বলে কিসের আওয়ামী লীগ, আমরাই তো সরকারকে টিকিয়ে রেখেছি।’

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ‘আমার প্রশ্ন একটাই, আজ পুলিশ কাস্টডিতে কেন যুবদল নেতা আকরামকে প্রাণ দিতে হলো। একজন সুস্থ-সবল যুবককে পুলিশ ধরে নিয়ে গেলো। তিনি জামিনে ছিলেন তার পরেও পুলিশ ধরে নিয়ে গেল। এটা শুধু হরিপুরের ঘটনা নয়, সারা দেশে আজ এমন ঘটনা ঘটছে। আমাদের আন্দোলন চলাকালীন সময়ে ৩০ জন নেতাকর্মীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে, আমাদের প্রায় ৬০ লাখ মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা এবং ৭০০ থেকে ৮০০ মানুষকে গুম করে দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, সোমবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে পুলিশি হেফাজতে মৃত্যু হয় ৪০ বছর বয়সী আকরাম হোসেনের। আকরাম হরিপুর উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব ছিলেন। এটিকে পুলিশ অসুস্থাজনিত কারণে মৃত্যু বললেও পুলিশের নির্যাতনেই আকরামের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে বিএনপি।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com