রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
আগৈলঝাড়ায় সরকারি সম্পত্তি থেকে গাছ কর্তন, অবশেষে সমস্ত গাছ সিজ করল বন কর্মকর্তা আজ তৃতীয় ধাপে ফুলবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন প্রেমের টানে মেক্সিকো থেকে জামালপুর লামায় অভিষেক ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ছাতিম ফুল: যে ফুলের সুবাসে সুবাসিত হয় হেমন্তের রজনী অপরিণত নবজাতক শিশুকে জন্মের এক মাসের মধ্যে চিকিৎকদের কাছে আনতে হবে রায়গঞ্জে রোপা আমন ধান কাটা শুরু, ফলন এবং দাম ভাল জ্বালানী তেল ও গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধি এবং দ্রব্যমূল্য বাড়ায় প্রতিবাদে কুষকদলের লিফলেট বিতরন ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রামবাসীর তাড়া খেয়ে মরল নীলগাই স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আরশিনগরে বর্ণাঢ্য আয়োজনের ঘোষণা




প্রেম ভালবাসা মস্তিষ্কের কেরামতি

খবরপত্র ডেস্ক:
  • আপডেট সময় বুধবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২১




প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়ার ঘটনা হয়তো অনেকের জীবনেই ঘটেছে। তাই বাক্যটির সঙ্গে কমবেশি সবাই পরিচিত। তবে সত্যিই কি প্রথম দেখাতে প্রেম হওয়া সম্ভব? স¤প্রতি এ বিষয়ে একটি গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে।
গবেষণার তথ্য অনুসারে, কোনো নারী বা পুরুষ একে অন্যকে দেখে যদি ঘামে, তাহলে বুঝতে হবে তাদের মধ্যে অনুভূতি কাজ করছে। এ সময় দুজনেরই হার্টবিট বেড়ে যেতে পারে। এগুলোই আসলে প্রেমে পড়ার সংকেত।
গবেষণায় আরও উল্লেখ করা হয়েছে, প্রেম বা ভালোবাসা কোনোটিই হৃদয়ের বিষয় নয়। আসলে সবটাই মস্তিষ্কের কেরামতি। কোনো নারী বা পুরুষ একে অন্যকে পছন্দ করলে প্রথম সাক্ষাৎকালেই তাদের মস্তিষ্ক উত্তেজিত হয়ে ওঠে। যখনই তারা একে অপরের সঙ্গে কথা বলেন বা চোখাচোখি করেন তখন দুজনের মধ্যেই হরমোনাল কিছু পরিবর্তন আসে। সময় যতটা বাড়তে থাকে, ততটাই তারা ঘামতে শুরু করে কিংবা লজ্জা পায়। যা সম্পর্ক শুরুর বিষয়ে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। নেচার হিউম্যান বিহেভিয়ার নামক জার্নালে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে। সেখা বলা হয়েছে, বর্তমানে অনলাইনের যুগে অনেকেই চ্যাটিংয়ের মাধ্যমেও প্রেমে পড়েন। তবে তা ভেঙে যেতেও সময় লাগে না। অথচ গবেষণায় দেখা গেছে, যদি কোনো জুটি অনলাইনে প্রেম না করে বরং সরাসরি সাক্ষাতের মাধ্যমে সম্পর্কে জড়ান তাহলে তাদের সম্পর্কে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। কারণ সরাসরি সাক্ষাৎকালে বিপরীতজনের হাসি, আবেগ, আনন্দ, বিষণ্নতাসহ সব অনুভূতির প্রকাশ টের পাওয়া যায়। এসব দেখে সঙ্গীর প্রতি ভালোলাগা ও ভালোবাসা বাড়ে। এমনকি তার চলাফেরা, কথাবার্তাসহ চারিত্রিক বিষয়গুলো সম্পর্কেও ধারণা পাওয়া যায়।
১৪২ জন নারী-পুরুষের উপর পরিচালিত হয় সমীক্ষা। এই সময় অংশগ্রহণকারী নারী-পুরুষরা একে অপরের সঙ্গে বসে কয়েক মিনিট সময় কাটান। যে কেবিনে যুগলরা বসেছিলেন, সেখানে অটো ট্রেকিং চশমা, হার্ট বিট মাপার যন্ত্র ইত্যাদি বসানো হয়েছিল।
গবেষণায় দেখা যায়, ১৪২ জনের মধ্যে ১৭ শতাংশ জন একে অপরের সঙ্গে দ্বিতীয়বার সাক্ষাৎ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তারা যখন একসঙ্গে সময় কাটাচ্ছিলেন তখন তাদের হার্টবিট, পালস প্রায় একই গতিতে চলছিল। পরে তা নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, প্রথম সাক্ষাতের পর একজন নারী ও পুরুষ একে অপরের প্রতি আকৃষ্ট হবে কি না তার উপর তাদের ভবিষ্যৎও নির্ভর করে। অনেকে প্রথম সাক্ষাতের পরই বুঝে যান, জীবনসঙ্গী পেয়ে গেছেন। তবে সবার ক্ষেত্রে তা সত্যি নাও হতে পারে। মোটকথা প্রথম দেখাতেই প্রেম হওয়া কি সম্ভব? এই প্রশ্নের উত্তর হল, অবশ্যই সম্ভব।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com