বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
সিলেটে আবার বাড়ছে পানি জামালপুরে শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সভা জগন্নাথপুরে অসহায় মানুষের সেবায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন ওসি মিজান দুর্গাপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ ও শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীকে প্রেসক্লাব সম্মাননা সাভারে শিক্ষক হত্যা ও নির্যতনের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ সমাবেশ রুয়েটে রোবটিক্স ফেয়ার “রোবোট্রনিক ২.০” শুরু গলাচিপায় ব্র্যাক সংস্থা সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা বিষয়ে পল্লী সমাজ গঠন নগরকান্দায় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সুমিনুর রহমানকে সংবর্ধনা জামালপুরে হিজড়াদের উন্নয়নে কমিউনিটি পর্যায়ে অভিভাবক সভা বরিশাল পোর্টরোড মোকামে নিষেধাজ্ঞা সত্বেও ট্রাকে ট্রাকে আসছে ইলিশ

লাভ বুঝলেও স্বাস্থ্যের ক্ষতি বোঝেন না তামাক চাষিরা

খবরপত্র ডেস্ক:
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০২২

জমিতে অধিক ফলন ও বাজারে দাম ভালো পাওয়ায় দিন দিন বেড়েই চলেছে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় ক্ষতিকর তামাক চাষ। তামাক চাষে লাভ বুঝলেও স্বাস্থ্যের ক্ষতি সম্পর্কে জানেন না অনেক চাষি। ফলে স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়েই বছরের পর বছর তামাক চাষ করছেন উপজেলার চিরাং, দুল্লী, বৈরাটী ও ছিলিমপুরসহ বেশ কয়টি এলাকার বাসিন্দারা। এতে কৃষক এবং তার পরিবারের সদস্যরা স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ছেন। দুল্লী এলাকার তামাক চাষি বদরুল ইসলাম বলেন, ‘বাপ-দাদার আমল থেকেই আমরা তামাক চাষ করে আসছি। এতে আমাদের স্বাস্থ্যের কোনও ক্ষতি হয় না। ধান চাষের তুলনায় তামাক চাষে আমরা দ্বিগুণ আয় করে থাকি। কৃষি অফিস থেকেও তামাক চাষের ক্ষতিকর দিক তুলে ধরে চাষাবাদে নিষেধ করা হয়নি। তাই বছরের পর বছর তামাক চাষ করে আসছি।’
ছিলিমপুরের তামাক চাষি কামাল হোসেন বলেন, ‘তামাক চাষ লাভজনক হওয়ায় দিন দিন কৃষকরা আগ্রহী হয়ে উঠছেন। তবে অনেক সময় তামাক চাষিদের সর্দি-কাশি দেখা দেয়। আর অসুস্থ হলেও এটিকে স্বাভাবিক রোগ মনে করেন চাষিরা। কারণ আমরা অনেকেই তামাক চাষে স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা জানি না। তবে মাঝেমধ্যে নানা রোগে আক্রান্ত হই।’ ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন ইউনিট-২-এর প্রধান চিকিৎসক খোরশেদ আলম বলেন, ‘তামাক চাষ মানবদেহের জন্য মারাত্মক ঝুঁকির কারণ। ফুসফুসজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে ক্যানসারে রূপ নিতে পারে। অধিকাংশ তামাক চাষির ফুসফুসে সমস্যা থাকার কথা। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করলে সবার রোগ ধরা পড়বে। হয়তো এটি জানেন না তামাক চাষিরা।’ নেত্রকোনা জেলা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক এফএম মোবারক আলী বলেন, ‘নেত্রকোনায় ১৩ হেক্টর জমিতে তামাক চাষ হচ্ছে। এতে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ছেন চাষি ও আশপাশের মানুষজন। তামাক চাষ বন্ধে শিগগিরই কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। ওসব এলাকার কৃষকরা যাতে তামাক চাষের বিকল্প ফসল উৎপাদন করেন, সেজন্য তাদের পরামর্শ দেওয়া হবে।’




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com