রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:০১ পূর্বাহ্ন




গভীর রাতে প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে উদ্ধার করলেন এমপি হারুন

রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি :
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০




ঝালকাঠির রাজাপুরের রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো মানসিক ভারসাম্যহীন প্রতিবন্ধী কিশোরী জাকিয়ার ছবি ফেইসবুকে দেখা মাত্র নিজ এলাকায় খোজ নেন ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনের সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুন। তিনি মুঠোফোনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজুকে জানাতেই কয়েক ঘন্টার মধ্যেই সহায়তা পৌঁছে গেল ওই প্রতিবন্ধী পরিবারের কাছে। সংসদ সদস্যের আর্থিক অনুদানে চাল, ডাল, লবণ, তেল, সেমাই, চিনি, প্রতিবন্ধী কিশোরী জাকিয়ার জন্য নতুন কাপড়সহ বিভিন্ন উপকরন সহায়তা অসহায় পরিবারটির কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়। যা পেয়ে ওই পরিবারের সদস্যরা আবেগে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েন। এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজাপুরের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সোহাগ হাওলাদার, রাজাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শহিদুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ, গালুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ মনিরুজ্জামান পনুসহ স্থানীয় নেতৃবর্গ। রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো মানসিক ভারসাম্যহীন প্রতিবন্ধী কিশোরী জাকিয়া(১৭) রাজাপুর উপজেলার ৪নং গালুয়া ইউনিয়নের গালুয়া দুর্গাপুর গ্রামের আঃ ছালাম ও স্বপ্না বিবি দম্পতির কন্যা। পিতা আঃ ছালাম কাজের জন্য ঢাকায় থাকায় সম্প্রতি সে উপজেলার বড়ইয়া ইউনিয়নের উত্তমপুর বাজারে ঘুরে বেড়ানো অবস্থায় স্থানীয় কেউ প্রতিবন্ধী কিশোরীর ছবি তুলে ফেইসবুকে পোষ্ট দিলে স্থানীয় সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুনের দৃষ্টিতে আসে। তাৎক্ষণিক গভীর রাতে মুঠোফোনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজু ও রাজাপুর থানার অফিসার ইনচার্চ (ওসি) মোঃ সহিদুল ইসলামের সাথে কথা বলে পুলিশের সহয়তায় প্রতিবন্ধী কিশোরীকে উত্তমপুর বাজার থেকে উদ্ধার করে পিতা আঃ ছালামের বাড়িতে পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন তিনি। এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজু বলেন সংসদ সদস্য মহোদয় বিষয়টি মুঠোফোনে জানাতেই আমরা খোজ নিয়ে জানতে পাই মানসিক ভারসাম্যহীন প্রতিবন্ধী কিশোরী জাকিয়া উপজেলার বড়ইয়া ইউনিয়নের উত্তমপুর বাজারে রয়েছে। প্রথমে পুলিশের সহায়তায় স্থানীয়রা তাকে বাড়িতে ফেরাতে ব্যার্থ হলে পরে রাজাপুর থানার অফিসার ইনচার্চ (ওসি) মোঃ সহিদুল ইসলাম সাহেব নিজে গিয়ে রাত দুইটায় তাকে উদ্ধার করে পিতা আঃ ছালামের বাড়িতে পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সোহাগ হাওলাদার সহ আমরা প্রতিবন্ধী কিশোরী জাকিয়ার বাড়িতে গিয়ে সংসদ সদস্য মহোদয়ের আর্থিক অনুদানে খাদ্য ও বস্ত্র সহায়তা পৌছে দেই।




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com