সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
রাজশাহী বিভাগ

দুপচাঁচিয়া আছির উদ্দিন চিশ্তী মেমোরিয়াল স্কুল ও কলেজে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী

বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলা আছির উদ্দিন চিশ্তী মেমোরিয়াল স্কুল ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে প্রতিষ্ঠান মাঠে অধ্যক্ষ আবদুল হামিদ সেখের

বিস্তারিত

তাড়াশে মহাসড়কের পাশে মধু বেচাকেনা নজর কেড়েছে

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের পাশে সরিষা ফুলের খাঁটি মধু বেচাকেনা হচ্ছে। মৌ খামারীদের মধু বেচার এমন পদ্ধতি বেশ নজর কেড়েছে লোকজনের। অনেকে যানবাহন থামিয়ে মধু কিনে নিচ্ছেন এ সড়ক দিয়ে

বিস্তারিত

জগন্নাথপুরে গিয়াস উদ্দিন তাহেরীর বয়ান শুনতে জনতার ঢল

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে পীর মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত্ব-তাহেরীর বয়ান শোনতে হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মানুষকে সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয়েছে আয়োজনকারীদের। যতদূর চোখ যায়,

বিস্তারিত

চাঁপাইনবাবগঞ্জে গ্রামীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে ক্রীড়া অধিদপ্তরের বার্ষিক ক্রীড়া কর্মসূচির অংশ হিসেবে ৫ ফেব্রুয়ারি সকালে জেলা স্টেডিয়ামে অ্যাথলেটিক্স ও গ্রামীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং সেরা অ্যাথলেটদের মাসব্যাপী প্রশিক্ষণের শুভ উদ্বোধন করেন

বিস্তারিত

রায়গঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বাইসাইকেল ও শিক্ষা উপ-বৃত্তি বিতরণ

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে ২০২৩-২৪ অর্থ বছরের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার সমতলে বসবাসকারী ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীভুক্ত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা বৃত্তি ও বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল রবিবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা

বিস্তারিত

তাড়াশে পুকুর পাড়ে বড়ই চাষ লাভের মুখ দেখছেন কৃষকরা গোলাম মোস্তফা বিশেষ প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পুকুর পাড়ে উন্নত জাতের বড়ই চাষ বেড়েছে। বিশেষ করে বড়ই চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন কৃষকরা। এ কাজে নারীরা সহযোগীতা করছেন। পৌর এলাকার আসানবাড়ি গ্রামের আবু ছাইম নামে এক কৃষক বলেন, পুকুরের এক পাড়ে ৩৫ শতক জায়গাতে বড়ই চাষ করে ২০ হাজার টাকা বিক্রি করেছেন। গাছে আরো ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকার বড়ই রয়েছে। এছাড়াও পুকুর পাড়ে লাউ, কুমড়াসহ বিভিন্ন শাক সবজির আবাদ করা হয়েছে। এসব তরিতরকারি বিক্রি করে সংসারের ব্যয়ভার অনেকটা মিটে যায়। বড়ই গাছ ও শাক সবজি পরিচর্যার কাজ অধিকাংশ সময় আমার স্ত্রী করে থাকেন। আবু ছাইমের স্ত্রী রাশিদা খাতুন বলেন, আমার স্বামী বোরো আবাদ করা নিয়ে সারাদিন মাঠে থাকেন। গাছের পরিচর্যা ও গাছ থেকে বড়ই পেরে নিজেই বিক্রি করি। প্রতিকেজি বড়ইয়ের পাইকারি দাম ৮০ টাকা। এ গ্রামের আরেক কৃষক আবু জাফর ওরফে টিক্কা বলেন, আমি ৫৮ শতক জায়গাতে বরই গাছ লাগিয়েছি। এরই মধ্যে ২৫ হাজার টাকার বড়ই বিক্রি করেছি। ব্যাপারীরা ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত দাম করেছেন। জানা গেছে, কৃষকরা আপেল কুল, বাউকুল, ভারত সুন্দরী, বল সুন্দরী ও কাস্মীরি কুল জাতের বরই চাষ করেছেন। স্থানীয় কৃষকরা জানিয়েছেন, পুকুর পাড়ে কিংবা পরিত্যক্ত জায়গায় মাটি ভরাট করে বড়ই চাষ করা যায়। বড়ই চাষ বেশ লাভ জনক। আগামী বছর গাছ লাগাতে হবেনা। এবছর বরই শেষ হয়ে গেলে বড়ই গাছের মাত্র এক ফুট রেখে সব অঙ্গ ছাঁটাই করে দেওয়া হবে। এরপর নতুন শাখা-প্রশাখা বেড়িয়ে গাছগুলো অধিক ঝাপড়া হয়ে বেড়ে উঠবে। তখন ফলনও বেশি পাওয়া যাবে এ বছরের তুলনায়। আগামী বছর খরচ কমে যাবে। কিন্তু লাভ আরো বেশি হবে। দেশীগ্রাম ইউনিয়নের আরঙ্গাইল গ্রামের কৃষক রোস্তম আলী বলেন, আমি পরিত্যক্ত জায়গাতে মাটি ভরাট করে বরই গাছ লাগিয়েছি। অন্যান্য ফসলের আবাদের চেয়ে বরই চাষে তিনগুণ লাভ। এদিকে পৌর এলাকার কহিত গ্রামের যুবক মিলন, তাড়াশ গ্রামের যুবক জাহিদ হোসেন ও খুঁটিগাছা গ্রামের যুবক রবিউল ইসলাম বলেন, পুকুড় পাড়ে বিভিন্ন জাতের বরই গাছ লাগিয়েছি। বাড়তি আয় হচ্ছে বরই চাষ করে। (০৩ ফেব্রুয়ারি) শনিবার দুপুরে দেখা গেছে, আসানবাড়ী গ্রামের খেলার মাঠের পাশের একটি পুকুর পাড়ে বড়ই গাছের পরিচর্যা করছেন এক নারী। এ বাগানে আপেল কুল, বাউকুল, ভারত সুন্দরী, বল সুন্দরী ও কাস্মীরি কুল জাতের বরই গাছ রয়েছে। এ প্রসঙ্গে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, তাড়াশে বড়ই চাষ ছিলোনা। কিন্তু প্রতি বছরই বড়ই চাষ বাড়ছে। বিশেষ করে পুকুর পাড়ে। এবছর ২০ হেক্টর জায়গাতে বড়ইয়ের চাষ করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পুকুর পাড়ে উন্নত জাতের বড়ই চাষ বেড়েছে। বিশেষ করে বড়ই চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন কৃষকরা। এ কাজে নারীরা সহযোগীতা করছেন। পৌর এলাকার আসানবাড়ি গ্রামের আবু ছাইম নামে

বিস্তারিত









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com