মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন




ফুটবলারদের বিনামূল্যে হিজাব দিচ্ছে ফিনল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক:
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১




ফিনল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন খেলোয়াড়দের বিনামূল্যে হিজাব সরবারহ করা শুরু করেছে। যদি কোনো খেলোয়াড় হিজাব পরতে চান তখনই তাকে একটি হিজাব দেয়া হচ্ছে। খেলায় বিভিন্ন ধর্মের মানুষের সম্পৃক্ততা বাড়ানোর জন্য এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ফিনল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনে নারী ও বালিকাদের মাননোন্নয়ন বিভাগের প্রধান হেইডি ফিলাজা সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেন, যতদূর জানা যায় ফিনল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন কয়েক ডজন হেডস্কার্ফ বা হিজাব সরবারহ করেছে। এ হিজাবগুলো আধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি। এ হিজাবগুলো এমন কাপড়ে তৈরি যা খেলার সময় মাথায় এঁটে থাকে এবং পড়ে যায় না। তিনি আরো বলেন, ‘ফিনল্যান্ডে অভিবাসী পরিবারের মেয়েগুলোকে ফুটবল ক্লাবগুলোতে পাওয়া যায় না। তাই আমরা এ উদ্যোগগুলো নিচ্ছি যাতে সব শ্রেণীর মেয়েদের ফুটবল খেলায় স্বাগত জানানো যায় ও সম্পৃক্ত করা যায়। মেয়েটি কোন ধর্মের বা কেন হিজাব পরতে চায় তা আমাদের কাছে মূখ্য নয়। আমরা চাই সবাইকে ফুটবল খেলায় সম্পৃক্ত করতে। ফিনল্যান্ডের রাজধানীর ভানটা এলাকায় অবস্থিত ভিজেএস ক্লাবে প্রশিক্ষণ নেয়ার সময় ১৩ বছরের নাসরো বাহনাম সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘এ হিজাবগুলো অন্য হিজাবের মতো ঝাপটায় না, এটা স্বাভাবিকভাবেই মাথায় থাকে। এ হিজাবগুলোকে টিশার্ট বা শরীরের কাপড়ের সাথেও আটকে রাখতে হয় না।’
একই ফুটবল ক্লাবে খেলা নাসরো বাহনামের সতীর্থ কামিলা নুহ বলেন, ‘এ হিজাব পরে সহজেই দৌড়ানো যায়।’
এ মেয়েগুলো এক বা দু’বছর ধরে ফুটবল খেলছে। তারা এটাও বলেছেন যে যখন তাদের বাবা-মা এ বিশেষ হিজাবের কথা জানতে পেরেছেন, তখন তারাও আনন্দ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।
হেইডি ফিলাজা বলেন, ‘সাংস্কৃতিক বিষয় আর এ সংক্রান্ত মূল্যবোধ বিসর্জনের চেয়ে তাদের জন্য হেডস্কার্ফ বা হিজাবের ব্যবস্থা করা ভালো। অভিবাসী কম্যুনিটির পরিবারগুলোর অল্প বয়সী বালিকা আর নারীদের ফুটবলে সম্পৃক্ত করার প্রধান বাঁধা হলো হিজাব। তাই বিনামূল্যে এ বিশেষ হিজাব দেয়ার একটি প্রতীকি গুরুত্ব আছে। এর মাধ্যমে ফুটবল খেলায় সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত হয়েছে।’ যদিও এ পদক্ষেপ নেয়ার ফলে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে তবু বিনামূল্যে এ বিশেষ হিজাব দেয়ার প্রকল্প কিছু সমালোচনারও শিকার হচ্ছে। কিছু লোক সমালোচনা করে বলছেন, বিনামূল্যে হিজাব দেয়ার মাধেমে নারীদের অপমান করা হচ্ছে, খেলার মধ্যে ধর্মকে টেনে আনা হচ্ছে।’ ২০১৮ সালের পিউ রিসার্চ সেন্টারের গবেষণায় দেখা গেছে, ‘ফিনল্যান্ড হলো মুসলিমবিরোধী মনোভাব দেখানোর ক্ষেত্রে ১৫ দেশের মধ্যে সবচেয়ে অগ্রবর্তী এক ভয়ঙ্কর দেশ। এ দেশে উগ্র ডানপন্থী খ্রিস্টান দল আগামী মাসের স্থানীয় নির্বাচনে প্রচুর আসন পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হেইডি ফিলাজা বিভিন্ন সমালোচনার জবাবে বলেন, ‘আমরা প্রত্যেক নারীর হিজাব পরার অধিকারকে সমর্থন করি। কোনো নারী হিজাব পরবেন নাকি পরবেন না তা তার নিজের পছন্দ। যে স্থানে নারীরা হিজাব পরতে চান, তারা পরতে পারবেন। আমরা দেখাতে চাই, যারা হিজাব পরতে চান তাদের স্বাগত জানানো হচ্ছে আর হিজাব ফুটবল খেলার ক্ষেত্রে কোনো বাঁধা নয়। সূত্র : ডন




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com