শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন

পুরোনো ফোন, হেডফোন ঘরে রাখলেই বিপদ

আইটি ডেস্ক:
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২২

পুরোনো জিনিসের মায়া ছাড়তে পারেন না বেশিরভাগ মানুষই। নতুন যত কিছুই হোক না কেন পুরোনোকে আঁকড়ে থাকার অভ্যাস আছে অনেকেরই। কেউ কেউ বলেন মায়া ছাড়তে পারি না! তবে পুরোনো অতীত হোক কিংবা ডিভাইস আপনার ভবিষ্যতে ক্ষতির কারণ হতে পারে।
যেমন অনেকেই আছেন নতুন ফোন কিনলেও পুরোনো ফোনটি ঘরে রেখে দেন। একইভাবে হেডফোন, চার্জার, স্পিকার, মাল্টিপ্লাগ, রাউটার কিছু ফেলেন না। ঘরে জমিয়ে রাখেন। এখন থেকে আর এই কাজ করবেন না ভুলেও। এটি খুবই বিপদজ্জনক। যে কোনো মুহূর্তে বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
>> পুরোনো মোবাইল ফোন দীর্ঘদিন ফেলে রাখলে বিভিন্নভাবে বিপদে পড়তে পারেন যেমন এর লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিপজ্জনক হয়ে ওঠে। এতে স্মার্টফোন বিস্ফোরণ হতে পারে যে কোনো সময়। বাড়ির আলমারিতে পুরোনো ফোন রাখার আগে সতর্ক থাকুন। পুরোনো ফোন প্রয়োজনে কম দামে বিক্রি করে বিপদ মুক্ত থাকুন।
>> পুরোনো হেডফোন ও স্পিকারে অনেক ক্ষতিকর উপাদান থাকে। চুম্বক ছাড়াও থাকে তামার কয়েল, প্লাস্টিক ও ব্যাটারি। পরিবেষকে দূষিত করে এই পদার্থগুলো। এছাড়াও পুরোনো হেডফোন অথবা স্পিকারের ব্যাটারি লিক করেও বিপদ ঘটতে পারে।
>> সব ব্লুটুথ ইয়ারফোন ও স্পিকারেই ব্যাটারি ব্যবহার হয়। এই ব্যাটারিতে কোনো রকম গড়মিল হলে খেসারৎ দিতে হতে পারে আপনাকেই। >> সুইচ বোর্ডে কোনো ভাঙা প্লাগ অথবা সুইচ থাকলে অবিলম্বে বদল করুন। কোনো কারণে বদল করার সুযোগ না হলে সেই পয়েন্টগুলো ব্যবহার বন্ধ করে দিন। বাড়িতে ছোট বাচ্চা থাকলে ঝুঁকি আরও বেশি।
>> পুরোনো মাল্টিপ্লাগ বাড়িতে রাখা খুবই বোকামি। কারণ পুরোনো পাওয়ার কর্ডে ইনস্যুলেশন ক্ষমতা কমে যায়। ফলে ব্যবহারের সময় বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
>> যারা অনেক দিনের পুরোনো রাউটার ব্যবহার করেন তাদের জন্য বিপদ ওত পেতেই থাকে। পুরোনো রাউটারে সুরক্ষা আঁটসাঁট হয় না। এই কারণে সহজেই হ্যাক করা সম্ভব। তাই আপনিও যদি পুরনো রাউটার ব্যবহার করেন তবে দ্রুত নতুন রাউটার কেনার কথা ভাবুন। সাইবার অপরাধীদের হাত থেকে নিজের সব তথ্য সুরক্ষিত রাখতে পুরোনো রাউটারের মাধ্যমে ওয়াইফাই ব্যবহারে বড় বিপদ হতে পারে। ইন্টারনেটের স্পিড ভালো পাওয়ার জন্য এবং বিপদ এড়াতে পুরোনো রাউটার এখনই ঘর থেকে বিদায় করুন। সূত্র: গ্যাজেটস নাও




শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর









© All rights reserved © 2020 khoborpatrabd.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com